Novoair adds brand new ATR 72-500 in fleet – BSS

DHAKA, Mar 13, 2016 (BSS) – NOVOAIR, one of the private airlines of the country, has procured a brand new ATR 72-500 airplane in its fleet, raising its total airplane numbers to five.

NOVOAIR’s ATR 72-500

The aircraft landed Hazrat Shahjalal International Airport (HSIA) from London via Moscow this afternoon.

High officials of Novoair and other respected personnel were present on the occasion.

In December 2015, NOVOAIR welcomed its first brand new ATR 72-500 and expects the 3rd same kind of aircraft by end of this month.

At present, Novoair operates domestic routes from Dhaka to Chittagong, Cox’s Bazar, Jessore, Sylhet and international route from Dhaka to Yangon.

The high-quality passenger services and utmost safety had been maintained by Novoair following CAAB rules and regulations for last 3 years, a press release said.

Furthermore, NOVOAIR earned 97.7% passenger satisfaction and ensured 98.3% on-time operation, it added.

News Link: http://bssnews.net/newsDetails.php?cat=0&id=560435&date=2016-03-13

Two days in Yangon – NewAge Report

Photos and text by Muktadir Rashid

sit01I was extremely cautious as the tiny jet was about to land following a nearly two hour long journey from Dhaka to Yangon on a sunny afternoon. After getting down from the plane and while I made my way to immigrations, I was astonished by the lavish Yangon International Airport, still under construction by the military rulers of Myanmar, for international passengers.
I was a bit perplexed due to the sheer number of news I had read about the isolated neighbour and incidents of rights violations over the years. After crossing immigrations, I was again surprised when I exchanged 124, 000 Kyat [pronouncd chayat] for US $ 100.
Once out the airport, we moved to Taw Win Garden Hotel, opposite the Russian Embassy in Myanmar. The 45-minute drive to the hotel was made through clean and bumpy roads through the suburbs outside Yangon which literally means ‘End of Enemy’. We learnt that the roads of the city are usually congested around this time.
sit02Following refreshments at the hotel, we went to Royal Lake-side Karaweik Palace to enjoy the Myanmar folkloric tradition with cuisine, music and traditional dance performance. This can be enjoyed every evening for three hours.
Even after these performances are over, the night is still young in Yangon. The city is particularly safe for tourists even after dark. Bars, open through the night, enjoy gathering from tourists and locals. There is little chance of untoward incidents as there are plenty of burly bouncers at these bars.
Yangon can be called the ‘city of Pagodas’ just like Dhaka is called the city of ‘mosques’. Also, betel leaf is extremely popular in the country where there are a number of different recipes for those who have the habit. Corners of bars and airports can be found riddled with betel leaf spits.
sit03During the second day, our sightseeing began with Maha Bandula Park, located downtown and surrounded by important buildings including the Sule Pagoda, the Yangon City Halland the High Court and most interestingly Bangali Sunni Jamme Mosque.
The sight of the mosque was interesting given the fact that I have read about the treatment Rohingya [locally pronounced Rohinza] muslims have been facing from the Myanmar government.
We also went to Botataung Pagoda, which claims to have Buddha’s sacred hair relic. The structure, located near the Yangon river port, is very secure with CCtv cameras and other secure facilities.
On the way to the Botataung Pagoda, you can see the city’s most expensive Strand Hotel, still as inspiring as it was during the early 20th Century on the stranded road. The hotel structure still exudes a colonial feeling.
sit04People of Myanmar believe that no visit to Yangon is complete without a visit to the 2,500 years old Shwedagon Pagoda, located west of the Royal Lake on 114-acre Singuttara Hill.
Shwedagon Pagoda is covered with hundreds of gold plates and the top of the stupa is encrusted with 4,531 diamonds, the largest of which is a 72 carat diamond.
But, as a tourist you have to pay US$8 to enter the holy site. This made me think about the revenues that can be incurred through entry charges to Sixty Dome Mosque in Bagherhat or even for visiting Somapura Mahavihara in Paharpur of Naogaon.
In the pagoda, tourists have to be very careful about their dresses. Strapless, tank top, wide neck, crop top, short pants and mini skirt, among others, are prohibited in the religious places in Yangon. So tourists should keep additional clothes with them while visiting the pagodas.

ঘুরে আসতে পারেন মায়ানমার – বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর

গোলাম মুজতবা ধ্রুব, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

News link: http://bangla.bdnews24.com/lifestyle/article1112375.bdnews

ব্যবসায়ী ও পর্যটকদের নতুন আকর্ষণ মিয়ানমার – দৈনিক জনকন্ঠ

পর্যটকদের নতুন গন্তব্য হিসেবে দ্রুত স্বীকৃতি পাচ্ছে মিয়ানমার। বাংলাদেশী ভ্রমণপিপাসুদের কাছে দেশটি এখন থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরের বিকল্প হিসেবে অগ্রাধিকার পাচ্ছে। বাংলাদেশ থেকে প্রতিদিনই মিয়ানমারমুখী যাত্রীর সংখ্যা বাড়ছে। গত এক বছরের পরিসংখ্যানে দেখা যায়, তিন কারণে মিয়ানমারের দিকে ঝুঁকছে বাংলাদেশীরা। স্বল্প দূরত্ব, স্বল্পব্যয় ও অবকাঠামোগত সুবিধার জন্যই মিয়ানমার এখন ভ্রমণপিপাসুদের টানছে। বৌদ্ধ ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ দেশটির আবহাওয়াও চমৎকার। এখানকার নৈসর্গিক দৃশ্যাবলীর পাশাপাশি হাজার বছরের ইতিহাসও ঐতিহ্য সমৃদ্ধ মিয়ানমারের মানুষের আতিথেয়তাও পর্যটকদের মুগ্ধ করার মতো। রয়েছে বিপুল খণিজ, যা দেখার মতো, শেখার মতো। ঢাকা থেকে মাত্র দেড় ঘণ্টার আকাশ পথের দূরত্বে মিয়ানমারে রয়েছে বাণিজ্যিক পর্যটনেরও বিপুল সম্ভাবনা। দীর্ঘ ছয় দশকের সামরিক শাসনের অবসান ঘটিয়ে গণতন্ত্রের উন্মেষলগ্নে দেশটির নতুন সরকারও পর্যটকদের জন্য আরও উদারনীতি গ্রহণ করেছে। মিয়ানমারে বাংলাদেশী ফার্মাসিউটিক্যালের অন্যতম সম্ভাবনাময় বাজার গড়ে তোলার পাশাপাশি অন্যান্য খাতেরও প্রসার ঘটছে। বছর তিনেক আগে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সরাসরি ইয়াঙ্গুন ফ্লাইট চালু করার পর দুদেশের মধ্যে যোগাযোগের দীর্ঘ বন্ধ্যত্বের অবসান ঘটে। বিমানের পরই যোগ হয় বেসরকারী এয়ারলাইন্স নভোএয়ারের শুভ যাত্রা। তারপরই দ্রুত বাড়তে থাকে মিয়ানমারমুখী বাংলাদেশী পর্যটকদের সংখ্যা। এই দেশটিতে পর্যটনের জন্য অপার সম্ভাবনা বিবেচনা করে নভোএয়ার চালু করে ট্যুর প্যাকেজ। দুদেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষীয় সম্পর্ক আরও উষ্ণ করতে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন পদক্ষেপ।

সম্প্রতি ঢাকা থেকে একদল ব্যবসায়ী, সাংবাদিক ও পর্যটক মিয়ানমার ঘুরে এসে জানান, এমন দেশের তুলনা হয় না। থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরের মতোই সব ধরনের অবকাঠামোগত সুবিধা রয়েছে মিয়ানমারে। অথচ দূরত্ব ও ব্যয়ের বিবেচনায় মিয়ানমারই বেশি লাভজনক। যে কারণে মিয়ানমারের প্রতি আগ্রহ বাড়ছে এ দেশীয় পর্যটকরদের। মিয়ানমারের চারপাশ জুড়ে রয়েছে মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, চীন ও ভারতের সীমান্ত। নদ-নদী, সাগর পাহাড় ও বিস্তৃত দিগন্ত ভূমি ছাড়াও রয়েছে পশ্চিমা সংস্কৃতির ঢেউ। সন্ধ্যার পর নিরাপদে ইয়াঙ্গুন শহরে একাকী ঘুরে বেড়ালেও থাকে না কোন উদ্বেগ। রাত গভীরে আধুনিক হাল ফ্যাশনের নারীরাও নির্বিঘেœ চলাচল করলেও কেউ ভ্রƒক্ষেপ করারও সাহস পায় না।

বাংলাদেশ মিয়ানমার চেম্বারের সূত্র জানায়, বর্তমানে মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশের বার্ষিক এক শ’ মিলিয়ন ডলারের ব্যবসা হচ্ছে। আগামী ২০২০ সালের মধ্যে এটা এক বিলিয়ন ডলারের পৌঁছার টার্গেট নিয়ে কাজ করছে ব্যবসায়ীরা।

নভোএয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মফিজুর রহমান জানান, মিয়ানমারের সঙ্গে বিমান যাত্রাটা ঝুঁকি জেনেও সেটা চালু করা হয়েছে শুধু ব্যবসায়িক সফলতার জন্য। দু’দেশের ব্যবসায়িক সম্পর্কটা যত বেশি উদার হবে, ততই লাভবান হবে উভয়দেশই। এ জন্য নভোএয়ার পর্যটকদের জন্য চালু করেছে সহজলভ্য বিভিন্ন প্যাকেজ। দুই রাত তিন দিনের মিতব্যয়ী প্যাকেজও ঘোষণা করা হয়েছে যাতে নিম্ন আয়ের লোকও সেখানে যাবার সুযোগ পায়। বর্তমানে নভোএয়ার সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট অপারেট করছে। ভাড়াও বিমানের তুলনায় কম।

মিয়ানমারে গত এক যুগ ধরে বসবাস করছেন এমন একজন বিজন বিশি জানান, বাংলাদেশী ওষুধ প্রস্তুতকারীদের কাছে মিয়ানমার ইতোমধ্যে স্বর্গীয় ভূমিতে পরিণত হয়েছে। মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ ওষুধ মার্কেট বিপুলাংশ দখল করে নিয়েছে ঢাকা। শীর্ষ কোম্পানিগুলোর ওষুধই মিয়ানমারের প্রতিটি ফার্মেসিতে শোভা পাচ্ছে। একইভাবে টেলিকম ব্যবসায়ীদের জন্যও এ দেশটি যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

News Link: http://bit.ly/1QawgtX